Home > আঙিনা ।। মাকসুদ আরিফ

আঙিনা-৩ ।। মাকসুদ আরিফ

অদৃশ্যের সাথে অদৃশ্যের খেলা মানব দেহে, অবুঝের সাথে অবুঝের ঝগড়া বোদ্ধার মস্তিস্কে। স্বার্থের নেকড়ে গিলে খায় স্বপ্নের ঝাঁপি। বেঁচে থাকার নিষ্ঠুর প্রয়োজন অভিনয় করতে শেখায় সময়ের প্রতিটি এককে। ধোঁয়াটে অনুভূতিগুলো মুখ থুবড়ে পড়ে থাকে কংক্রিটের দেয়ালে। অলি-গলি থেকে ছুটে আসা সরু পথের মায়া ছেড়ে শহুরে রাজ পথ ছুটে চলে দূর দুরান্তে। নিরবতা হয় নিমগ্নতা, নিস্তব্ধতা হয় বাকরুদ্ধতার বহিঃপ্রকাশ। অবহেলা হয় ধ্বংস বা সাফল্যের অন্যতম উপকরণ। মূক স্বপ্নগুলো অন্ধত্ব আর বধিরতা নিয়ে ছড়িয়ে থাকে আঙিনায়। কুয়াশা

বিস্তারিত পড়ুন

আঙিনা-২।। মাকসুদ আরিফ

উদ্ভ্রান্ত হাসিগুলো ছড়িয়ে নিল মুখোশের এপাশ ওপাশ। ক্লান্ত কল্পনাগুলো জড়ো সড়ো আঙিনায়। চোখের গহ্বর জুড়ে অন্ধকারের বসতি। হারিয়ে যাওয়া পথে ঠিকানাহীন গন্তব্যের খোঁজ। উপমার দল ক্ষোভে অভিমানে গা ঢাকা দিয়েছে অনেক দিন হলো। এখনো চাঁদের আলোয় আপ্লুত হয় অনেক প্রান। অজস্র আকুতি নিয়ে পড়ে থাকে কারো দৃষ্টির প্রান্ত সীমায়। আমি পড়ে থাকি শুধু একটি আকুতি নিয়ে।

বিস্তারিত পড়ুন

আঙিনা ।। মাকসুদ আরিফ

শেষ ট্রেনে ফিরে গেছে সেই, প্রিয় চেনা মুখ, এখন আমি ঠায় দাঁড়িয়ে অগনিত মানুষের ভিড়ে। আমার বুক ভাঙ্গা আকুতি,চোখ ভাসানো আবেগ মিলে একাকার অজস্র মানুষের অজ্ঞাত ব্যাস্ততায়। প্রকৃতি তার নিয়ম ভাঙ্গেনি বেদনার বিষাক্ত নীল জলে আমায় সে ভাসতে শিখিয়েছে। এখনো আমি নিয়মিত গোসল করি, চা-সিগারেট, বন্ধুদের আড্ডা ভুলে যাই না, তবুও রাত কিংবা দিন সব সময় অশরীরে পড়ে থাকি তার নিষিদ্ধ আঙিনায়। অপেক্ষায় থাকি, আমিও কখন শেষ ট্রেনে

বিস্তারিত পড়ুন