বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
Home > ফিচার > সর্বকালের সেরা চিত্রকর্মসমূহ

সর্বকালের সেরা চিত্রকর্মসমূহ

Spread the love
মোনালিসা
 

১.মোনা লিসা

ইতালীর শিল্পী লিওনার্দো দা ভিঞ্চি ১৬ শতকে এই ছবিটি অঙ্কন করেন। ধারণা করা হয়, বিখ্যাত এই ছবিটি মোনা লিসার দ্বিতীয় পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ স্মরণে অঙ্কিত। অনেক শিল্প-গবেষক রহস্যময় হাসির এই নারীকে ফ্লোরেন্টাইনের বণিক ফ্রান্সিসকো দ্য গিওকন্ডোর স্ত্রী লিসা গেরাদিনি বলে সনাক্ত করেছেন। শিল্পকর্মটি ফ্রান্সের ল্যুভ জাদুঘরে সংরক্ষিত আছে। ল্যুভ জাদুঘরের তথ্যমতে প্রায় ৮০% পর্যটক শুধু মোনা লিসার চিত্র টি দেখার জন্য আসে৷ চিত্রকলার ইতিহাসে এই চিত্রকর্মটির মতো আর কোনটি এত আলোচিত ও বিখ্যাত হয়নি। এর একমাত্র কারণ মোনালিসার সেই কৌতূহলোদ্দীপক হাসি যা পরবর্তীতে বহু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

দ্য লাস্ট সাফার
 

২.দ্য লাস্ট সাপার

দ্য লাস্ট সাপার বা শেষ নৈশভোজ হলো ইতালীয় চিত্রশিল্পী লিওনার্দো দা ভিঞ্চির আঁকা বিখ্যাত দেয়াল চিত্রকর্ম । মোনালিসার পর এই ছবিটিকেই লিওনার্দোর সেরা কীর্তি হিসেবে মনে করা হয়। ধারণা করা হয় ১৪৯৫-১৪৯৮ খ্রিস্টাব্দের মধ্যবর্তী সময়ে ছবিটি আঁকা হয়েছিলো। দ্যা লাস্ট সাপার দেয়ালচিত্রটি ৪৬০×৮৮০ সেন্টিমিটার আকারের (১৫ ফুট×২৯ফুট), এবং এটি শোভা পাচ্ছে ইতালির মিলানের সান্তা মারিয়া দে্লে গ্রাজির ডাইনিং হলের পিছনের দেয়ালে৷

উইসলার’স মাদার

৩.উইসলার’স মাদার

ক্যানভাসের উপর তেলরঙে আঁকা বিখ্যাত এই পোর্ট্রেইটটির আঁকিয়ে আমেরিকান চিত্রকর জেমস ম্যাকনেইল উইসলার। ১৮৭১ সালে ছবিটি আঁকেন তিনি। ছবিটির সাবজেক্ট হলেন তার মা অ্যানা ম্যাকনেইল উইসলার। ১৮৭২ সালে রয়েল অ্যাকাডেমির এক্সিবিশানে ছবিটি জমা দেওয়ার সময় অবশ্য তিনি এর নাম দিয়েছিলেন, ‘অ্যারেঞ্জমেন্ট ইন গ্রে অ্যান্ড ব্ল্যাক – পোর্ট্রেইট অব দ্য পেইন্টার’স মাদার’। উইসলার ছবিটি এঁকেছিলেন লন্ডনে বসে, তার স্টুডিওতে। খুঁতখুঁতে স্বভাবের উইসলার সাধারণত একটি ছবি আঁকতে অনেক বেশি সময় নিতেন। কিন্তু এ মাস্টারপিসটি আঁকতে তিনি সময় নিয়েছিলেন মাত্র তিন মাস।

 
স্টারি নাইট

৪. স্টারি নাইট

ভিনসেন্ট ভ্যান গগ পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে বিখ্যাত এবং গুণী চিত্রকরদের একজন। তার বিখ্যাত চিত্রকর্ম দ্য স্টারি নাইট পেয়েছে অগণিত মানুষের ভালোবাসা। অনেক চিত্রবোদ্ধাদের মতে, এটিই তার জীবনের সেরা কাজ। মৃত্যুর ঠিক এক বছর আগে ১৮৮৯ সালে জুন মাসে এ ছবিটি আঁকেন ভ্যান গগ।মানসিক বিকারগ্রস্থ হয়ে নিজের কান নিজেই কেটে ফেলেছিলেন। আবার নিজ থেকেই ভর্তি হয়েছিলেন এক মানসিক হাসপাতালে। ভোর হবার কিছুক্ষণ আগে তার ঘরের জানলা থেকে বাইরে তাকান এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই ছবিটি এঁকে ফেলেন তিনি। তিনি বলতেন, আমার প্রায়ই মনে হয় যে, রাতেই অন্ধকার দিনের চেয়ে

অনেক বেশি রঙিন।

দ্য ফ্লাওয়ার ক্যারিয়ার

৫.দ্য ফ্লাওয়ার ক্যারিয়ার

দ্য ফ্লাওয়ার ক্যারিয়ার মেক্সিকান আঁকিয়ে দিয়েগো রিভেরার সেরা ছবিগুলোর একটি। ছবিটি বেশ কিছু কারণেই গুরুত্বপূর্ণ। মানুষের যে স্বাভাবিক সৌন্দর্যবোধ, তা পূরণের মাধ্যম হয়ে যায় আমাদের সমাজের শ্রমজীবী মানুষেরা। অথচ সেই সৌন্দর্য ভোগ করার ফুসরত নেই তাদের। উজ্জ্বল সব রঙের ব্যবহার ছবিটিকে আকর্ষণীয় করেছে যেমন, স্বভাবজাত আমাদের সৌন্দর্যপ্রিয়তার কারণে আমদের নজর কেড়ে নেয় বিশাল সেই ঝুড়ির ফুলগুলো।

দ্য সন অফ ম্যান

৬.দ্য সন অফ ম্যান

বেলজিয়ান আঁকিয়ে রেনে মাগ্রিতের একটি জনপ্রিয় সুররিয়ালিস্ট পেইন্টিং দ্য সন অফ ম্যান। ছবিটি মাগ্রিত এঁকেছিলেন সেল্ফ পোর্ট্রেইট হিসেবে। ছবিটিতে আমরা দেখতে পাই ওভারকোট এবং বোলার হ্যাট পরিহিত একজন মানুষের মুখ প্রায় ঢেকে দিয়েছে পড়ন্ত একটি সবুজ আপেল। মানুষটি দাঁড়িয়ে আছেন একটি নিচু দেওয়ালের সামনে আর ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করেছে সমুদ্র এবং মেঘাচ্ছন্ন আকাশ। আরেকটি ব্যাপার লক্ষ্যণীয়, তা হলো, লোকটির বাঁ হাতের কনুই উল্টোদিকে ভাঁজ করা৷

গের্নিকা

৭.গের্নিকা

পাবলো পিকাসো কর্তৃক আঁকা একটি বিখ্যাত চিত্রকর্ম। এটি স্পেনীয় গৃহযুদ্ধের সময় এপ্রিল ২৬, ১৯৩৮ সালে স্পেনীয় জাতীয়তাবাদী বাহিনীর নির্দেশে জার্মান এবং ইতালীয় যুদ্ধ বিমান কর্তৃক উত্তর স্পেনের বাস্ক কান্ট্রি গ্রাম গের্নিকায় বোমাবর্ষণের প্রতিক্রিয়ায় প্রকাশ হিসেবে তৈরি হয়েছে৷ স্পেনীয় সরকারের একটি কমিশনের অধীনে ১৯৩৮ সালে প্যারিস আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর জন্য এই দেয়ালচিত্র বা মিউরালটি তৈরি করেন। চূড়ান্ত অবস্থায় ক্যানভাসের এর উপর সাদা কালো তেলরঙে তৈরি এই ছবিটি ১১ ফুট ৬ ইঞ্চি দীর্ঘ এবং ২৬ ফুট প্রশস্ত। গের্নিকা-য় পিকাসো মানুষ ও জীবজন্তুর যন্ত্রণা ও বাড়িঘরের ভেঙ্গেচুরে যাওয়ার অরাজকতাকে ফুটিয়ে তুলেছেন।

লাস মেনিনাস

৮.লাস মেনিনাস

১৬৫৬ সালে দিয়েগো ভেলাজকুয়েজের আঁকা ‘লাস মেনিনাস’ রয়েছে স্পেনের মাদ্রিদে। প্রাদো জাদুঘরের এই পেইন্টিংয়ে স্প্যানিশ রাজপরিবারের সঙ্গে খোদ দিয়েগো ভেলাজকুয়েজও রয়েছেন।

Facebook Comments