Sunday, January 16, 2022
Home > দেশ > মিসরে আন্তর্জাতিক বইমেলায় বাংলাদেশি লেখকের ৪ বই

মিসরে আন্তর্জাতিক বইমেলায় বাংলাদেশি লেখকের ৪ বই

Spread the love

মিসরে আন্তর্জাতিক বইমেলায় বাংলাদেশী লেখক মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফের ৪টি বই প্রদর্শিত হচ্ছে। বিশ্বের সব ইসলামিক স্কলারদের লেখা গ্রন্থ মিসরের সেই আন্তর্জাতিক বইমেলায়  স্থান পেয়েছে।


বুধবার (২৩ জানুয়ারি) থেকে মিসরের কায়রোতে শুরু হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইসলামিক বইমেলা। স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় মিসরের শিক্ষামন্ত্রী তারেক শাওকী এ মেলার উদ্বোধন করেন।

মিসর থেকে মোবাইলফোনে মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। আল্লাহর অশেষ রহমতেই আমার এ সৌভাগ্য অর্জন হয়েছে। এর আগেও আরববিশ্বে আমার ৩টি বই প্রকাশিত হয়।’

মিসরের প্রাচীন ও বিশ্ববিখ্যাত প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘মাকতাবাতুত তাওফিকিয়্যাহ’র আমন্ত্রণে ওই বইমেলায় গিয়েছেন মাওলানা মারুফ।

মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ ঢাকা সার্কিট হাউস জামে মসজিদের খতিব ও রাজধানীর ইসলামী বিদ্যাপীঠ  জামিআ ইকরা বাংলাদেশের প্রিন্সিপাল।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) মিসরের ডেইলি পত্রিকা আকীদাতিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার অভিভাবক পরিষদ সদস্য  মাওলানা আরীফ উদ্দিন মারুফ বলেন, তার চারটি বই এই বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে। মক্কার দারু তইবা প্রকাশনী থেকে ‘ফি লাহজাতিল ওয়াদায়িল আখির’, দারুল হাদিস থেকে ‘রাওয়ায়ে মিন আশআরিস সাহাবাহ’ মাকতাবুত তাওফিকিয়্যা থেকে ‘রিসালাতুল আমনি ওয়াস সালাম’ এবং দারু তইবা থেকেই ‘আলা ইয়া আইনু ইবকি’। মিসরের এ অভিজাত প্রকাশনীগুলোতেই পাওয়া যাচ্ছে তার লিখিত চার বই।

উল্লেখ্য, ৬০ বছরের প্রাচীন মিশরের এই আন্তর্জাতিক বইমেলা। ‘মা’আরাতুল কাহেরা আদদাওলিলিল কিতাব’ নামে যেটি সারা পৃথিবীতে প্রসিদ্ধ। এই মেলায় বিশ্বের প্রায় ৫৮টি দেশের ৫০০ এর অধিক প্রকাশনী অংশগ্রহণ করেছে।

পবিত্র কাবার জিয়ারতকারী বিশ্বের বরেণ্য আলেমগণকে যেসব হাদিয়া দেয়া হবে এরমধ্যে তালিকায় রয়েছে এ লেখকের বই ‘ফি লাহজাতিল ওয়াদায়ীল আখীর’। মাওলানা মারুফ একদিকে যেমন আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত হাফেজ ও মুফাসসির অন্যদিকে তিনি একজন উঁচু মানের আরবী সাহিত্যিক।

‘ফি লাহজাতিল ওয়াদায়ীল আখীর’ ২০১৫ সালে মক্কার অভিজাত প্রকাশনী ‘দারু তিবাতিল খাযরা’ প্রকাশ করে। তখনকার আরব বইমেলাগুলোতে বইটি বেশ সাড়া ফেলে।  এ নিয়ে বেশ চমকপ্রদ ঘটনাও আছে আরবের বইমেলায়।

পাঠকের চাহিদাপূরণে লেখকের প্রত্যেকটি বই ই প্রকাশনীগুলোকে বেশ ক’বার ছাপাখানায় তুলতে হয়েছে। এ বিষয়ে লেখক মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ জানান, ‘ভিন্নভাষী কোনও আলেমের এমন সফলতায় আরবের শায়খরা আমাকে শুভেচ্ছা ও অভিবাদন জানিয়েছেন।’

Facebook Comments