Monday, January 17, 2022
Home > ফিচার > সময়ে সেরা সঙ্গী বই

সময়ে সেরা সঙ্গী বই

Spread the love

ফারিহা খান : করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের বাধ্য হয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে। এখন বই হতে পারে সময়ের সেরা এক সঙ্গী। এ অবস্থায় আপনি এমন এক অভ্যাস গড়ে তুলতে পারেন, যা মহামারি কিংবা মহামারিতে আবর্তিত গোটা জাতিকে পথ দেখাতে সক্ষম। এমন অনেক উদাহরণ পাওয়া যাবে যে, অতীতে পাঠক ছিলেন। সময়ের পরিক্রমায় ব্যস্ততায় সে অভ্যাস শেষ হয়ে গেছে। এ সময় বই পড়ে নিজের সেই পুরনো অভ্যাসকে জাগিয়ে তুলুন৷
আমাদের মনন জগতের কল্পনাশক্তি বৃদ্ধি পেতে সহায়তা করে বই। বই পড়ার মাধ্যমে মানুষের প্রচুর অনুশীলন হয়, ফলে মস্তিষ্কের স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি ঘটে। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ভাষার বই পড়ার মাধ্যমে আমাদের ঝুলিতে নতুন নতুন শব্দ যুক্ত হয়। যার মাধ্যমে আমাদের বাচনভঙ্গিকে স্পষ্ট, সুন্দর ও তাৎপর্যমণ্ডিত করে তুলতে পারি৷ আমাদের মধ্যে হয়তো অনেকের জানা আছে, এ পর্যন্ত যারা বিশ্বের বুকে সফল হয়েছেন, তারা কতটা বই পড়তে আগ্রহী ছিলেন।
নিচে বই পাঠ্যাভাসের উপকারিতা নিয়ে বিখ্যাত মনীষীদের কিছু গুরুত্বপূর্ণ উক্তি উল্লেখ করা হল-

১. প্রচুর বই নিয়ে গরীব হয়ে চিলোকোঠায় বসবাস করব, তবু এমন রাজা হতে চাই না যে বই পড়তে ভালোবাসে না। (জন মেকলে)
২.যে বই পড়ে না, তার মধ্যে মর্যাদাবোধ জন্মে না। (পিয়ারসন স্মিথ)
৩. বই ছাড়া একটি কক্ষ, আত্মা ছাড়া দেহের মতো। (মার্কাস টুলিয়াস সিসারো)
৪. গৃহের কোনো আসবাবপত্র বইয়ের মতো সুন্দর নয়। (সিডনি স্মিথ)
৫. বই কিনে কেউ কোনোদিন দেউলিয়া হয় না। (প্রমথ চৌধুরী)
৬. বই পড়াকে যথার্থ সঙ্গী হিসেবে যে সঙ্গী করে নিতে পারে, তার জীবনে দুঃখ-কষ্টের বোঝা অনেক কমে যায়। (শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়)
৭. বই হচ্ছে মস্তিষ্কের সন্তান (সুইফট)
৮. একটি ভালো বই হলো বর্তমান ও চিরকালের জন্য সবচেয়ে উৎকৃষ্ট বন্ধু। (টুপার)
৯. আইনের মৃত্যু আছে, কিন্ত বইয়ের মৃত্যু নেই। (এনড্রিউ ল্যাঙ)
১০. আমরা যখন বই সংগ্রহ করি, তখন আমরা আনন্দকেই সংগ্রহ করি। (ভিনসেন্ট স্টারেট)

বই পড়ার উপকারিতা :

১. জীবনের নতুন দর্শন খুঁজে পাওয়া যায়।
২.মানুষকে বিচক্ষণ করে তোলে।
৩. সৃজনশীল মেধা বিকাশিত হয়।
৪. স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে।
৫. বিভিন্ন ভাষায় দক্ষতা বাড়াতে সহায়তা করে।
৬.মানসিক চাপ কমায়।
৭. অন্যের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নেওয়া যায়।
৮.কল্পনা শক্তি বৃদ্ধি করে।
৯.লেখনী শক্তি বৃদ্ধি করে।
১০.আত্মসম্মান বোধ তৈরি করে।
সুতরাং, আসুন এই কোয়ারেন্টাইনের সময়টা নষ্ট না করে বই পড়ার নিয়মিত অভ্যাস গড়ে তুলি।

Facebook Comments