Saturday, October 16, 2021
Home > খেলাধুলা > কুমিল্লাকে হারিয়ে ঢাকার প্রথম জয়

কুমিল্লাকে হারিয়ে ঢাকার প্রথম জয়

ঢাকা প্লাটুন

প্রথম ম্যাচে হার দিয়ে শুরু করলেও ঢাকা প্লাটুন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জমজমাট একটি লড়াইয়ে হারিয়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সকে। মিরপুরে শুক্রবার রাতের ম্যাচে তামিম ইকবালের দারুণ ব্যাটিং এবং থিসারা পেরেরার অলরাউন্ড নৈপূণ্যে ২০ রানে জয় পেয়েছে মাশরাফীর দল।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়া কুমিল্লা, ঢাকার করা ১৮০ রানের পেছনে ছুটতে গিয়ে থেমে যায় ১৬০ রানে। ঢাকার ওপেনার তামিম ৭৪ রান করার পর দলটির পেসার পেরেরা নেন ৫ উইকেট। লঙ্কান ক্রিকেটার ব্যাট হাতে সাতটি চার ও এক ছক্কায় ১৭ বলে ৪২টি রানও করেন।

জবাব দিতে নেমে কুমিল্লা ৩২ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায়। তৃতীয় ওভারে ভানুকা রাজাপাকসেকে (২৯) ফিরিয়ে দেন মাশরাফী। চতুর্থ ওভারে ইয়াসির আলীকে (৩) ফেরান মেহেদী হাসান। তিন নম্বর নেমে সৌম্য সরকার চেষ্টা করেন রানের চাকা সচল রাখার। ২৬ বলে পাঁচ চার, এক ছয়ে ৩৫ রানে থামে তার লড়াই। সাব্বির রহমান (৪) দ্রুত বিদায় নিলে দলটি চাপে পড়ে যায়।

এরপর ডেভিড মালান এবং মাহিদুল ইসলাম লড়াইটা ধরে রাখেন। ১৮তম ওভারে ওয়াহাব রিয়াজের বলে কট অ্যান্ড বোল্ড হয়ে ফেরার আগে ৩৬ বলে ৪০ রান করেন মালান। মাহিদুল ফেরেন ২৭ বলে ৩৭ করে।

মাশরাফী এদিন সাত বোলার ব্যবহার করেছেন। পেরেরা ৫ উইকেট নিতে খরচ করেন ৩০ রান। মেহেদী হাসান চার ওভারে ২৮ দিয়ে এক উইকেট নেন। মাশরাফী নিজে করেন তিন ওভার। ২৭ রান দিয়ে ফেরান একজনকে। ওয়াহাব রিয়াজ ৩ ওভারে ১৬ দিয়ে নেন দুই উইকেট।

এর আগে ঢাকার হয়ে দারুণ ব্যাট করেন তামিম ইকবাল। তৃতীয় উইকেটে লরি ইভান্সের সঙ্গে ৭৫ রানের জুটি গড়েন। পঞ্চদশ ওভারে ইভান্সকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন শানাকা। ২ চারে ২৪ বলে ২৩ রান করে আউট হন ইংলিশ ব্যাটসম্যান।

নিজের শেষ ওভারে তামিমকে ফেরান শানাকা। ৫৩ বলে ৬টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৭৪ রান করেন তামিম। ১৭ বলে ৪২ রানে অপরাজিত থেকে যান পেরেরা। সাতটি চারের সঙ্গে তার ইনিংসে আছে ১টি ছক্কা।

৩৯ রানে ২ উইকেট নিয়ে কুমিল্লার সেরা বোলার সৌম্য। ২ উইকেট পান অধিনায়ক শানাকাও। তবে তাকে গুনতে হয়েছে ৪৮ রান।

Facebook Comments