Friday, January 28, 2022
Home > বই আলোচনা > বুক রিভিউ “কবি ও কঙ্কাবতী”

বুক রিভিউ “কবি ও কঙ্কাবতী”

Spread the love

জীগল মণ্ডল

লেখক


“কবি ও কঙ্কাবতী ”
উপন্যাস।

পড়েছিলাম অনেকদিন আগে। দেখি এখন কেমন মনে আছে। এক বসাতে শেষ করেছিলাম। বেড়াতে এসেছি, বইটা কাছে নেই। স্মৃতি থেকে বলতে হবে কেমন অনুভব ছিল আমার।

কাহিনী ব্রিটিশ পিরিয়ডের। পলাশীর যুদ্ধের কথা আছে। অনেকেই যারা সামাজিক বিজ্ঞান বা ইতিহাস বইতে ইংরেজদের সম্পর্কে পড়েছেন তারা খুব মজা পাবেন। জানা প্লটের শৈল্পিক বিবরনের কারনে।

এক জমিদারপুত্র কেন্দ্রীয় চরিত্র। যার ভেতরে জমিদারির কলুষতা বা নিষ্ঠুরতার চেয়ে মমতা ও নিসর্গ বেশি। কঙ্কাবতীর সাথে তার পরিচয় হয়। প্রেম হয়। বজরা নৌকাতে তারা জোছনা পোহায়।

বৈরাগ্য স্থায়ী হয়না কবির। তার গায়ে জমিদারের রক্ত। পিতার বিপদে তাকে ফিরতে হয়। সম্মান পৌরুষ রক্ষা করতে। সম্মান আর বিজয় তার পায়ের কাছে আসে। লোভ থাকে না তার।

দুঃখ দেয়া বা পাঠকের হৃদয়ে দাগ দেয় কঙ্কাবতীর মৃত্যু। কবির জমিদারী ত্যাগ করে বৈরাগ্য।

এগুলো সব ভাল দিক।

এবার কিছু সমালোচনা-

বইটার ব্যাপারে যেভাবে প্রাচার করা হয়েছিল সবাই ভেবেছিল আকারটা বড় হবে, তা হয়নি।

আকার ছোট হবার কারনে ব্রিটিশ আমলে সমাজ, রাষ্ট্র, যুদ্ধ, এবং ঐ পরিবারের অনেককিছুই পূর্ণতা পায়নি। যা পাঠক আরো চেয়েছিল।

কেননা পাঠকেরা এই ঘরনার বইগুলোকে পড়ে সুনীলের ” সেই সময়”, বা “প্রথম আলোর ” মত বইকে মনে করবে।
সেক্ষেত্রে বইয়ের আকার আরো সময় নিয়ে হলেও বড় করা,দরকার ছিল।

দ্রুত গিয়েছেন। এটা আমার ক্ষেত্রেও অনেকে বলেন। আমার কাছে জিরো ফেটের লেখা ভাল লাগে। তবে অনেকের কাছে ইতিহাস নির্ভর বইতে আরেকটু ধীরে গেলে মজা পেত।

তবে আমি পাগলা ঘোড়ায় চড়তে ভালবাসি।

শুভকামনা রইলো লেখক মুহম্মদ নিজাম  -এর প্রতি।

Facebook Comments