বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
Home > সংবাদ > সংবর্ধিত হলেন রোহিঙ্গাদের সেবায় নজীর স্থাপনকারী ২০ সংস্থা ও আলেম

সংবর্ধিত হলেন রোহিঙ্গাদের সেবায় নজীর স্থাপনকারী ২০ সংস্থা ও আলেম

Spread the love

অক্ষর : মিয়ানমার সামরিক জান্তার নির্যাতনে বিতাড়িত সহায়-সম্বলহীন রোহিঙ্গাদের সেবায় অনন্য নজীর স্থাপনকারী সংস্থা ও ব্যক্তিবর্গকে সংবর্ধনা ও বিশেষ সম্মাননা প্রদান করেছে বিশ্বকল্যাণ ফাউন্ডেশন।

এছাড়া বিশিষ্ট ব্যাংকার ও আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক ট্রেনিং এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের প্রিন্সিপাল নুরুল ইসলাম খলিফা রচিত নৈতিক আচরণ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছে বিশ্বকল্যাণ পাবলিকেশন্স।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ভবনস্থ পুস্পদাম রেস্টুরেন্টে যৌথভাবে আয়োজিত সন্মাননা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দারুর রাশাদ মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুহাম্মদ সালমান।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিচারপতি শামসুল হুদা। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের এমডি মুহাম্মদ হাবীবুর রহমান, লেখক ও কলামিস্ট মাসুদ মজুমদার, বিশ্বকল্যাণ লাইব্রেরীর সত্ত্বাধিকারী মাওলানা সাইফুল ইসলাম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মুফতি আব্দুল মুমিন ও ডা. এম সাখাওয়াত হুসাইন।

রোহিঙ্গাদের সেবার জন্য সন্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়েছে আল মারকাজুল ইসলামী বাংলাদেশ, জামেয়া কোরআনিয়া আরাবিয়া লালবাগ ঢাকা, পীর সাহেব চরমোনাই, প্রফেসর ডা. গোলাম হায়দার, ইত্তেফাকুল উলামা মোমেনশাহী, গরীব ও ইয়াতিম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশন, নাগরিক শিক্ষা স্বাস্থ্য বিভাবক সোসাইটি (নাবিক) , মদীনাতুল খাইরী আল-ইসলামী ফাউন্ডেশন, প্রিন্সিপাল সোসাইটি ঢাকা, হাফেজ্জী হুজুুর (রহ.) সেবা সংস্থা,  মাওলানা মামুনুল হক, মাওলানা মাযহারুল ইসলাম, মাও. হাবিবুর রহমান মিসবাহ, মাওলানা গাজী ইয়াকুব, মাওলানা আহমেদ বেলাল মৌলভীবাজার, মাওলানা হুসাইন আহমদ কক্সবাজার, মাওলানা সালাহুদ্দীন মাসউদ বগুড়া, মাওলানা আব্দুল ওয়াহেদ খুলনা , মাওলানা রিদওয়ানুল কাদির কক্সবাজার, মাওলানা রহমতুল্লাহ, কক্সবাজার।

বিচারপতি শামসুল হুদা বলেন, রোহিঙ্গা শরনার্থীদের সহায়তায় প্রথম থেকেই ঈমানী দায়িত্বে পাশে দাড়িয়েছেন আলেম সমাজ। রোহিঙ্গাদের নিয়ে যাতে কোনো রাজনীতি না হয় এজন্য আলেম সমাজকে আরো সতর্ক হতে হবে।

সংবর্ধিত বিভিন্ন সংস্থার ব্যক্তিগণ বলেছেন, মিয়ানমার জান্তার বর্বরতায় বিতাড়িত হয়ে শরনার্থী হয়ে এদেশে এসে ধর্মান্তরিত হওয়ার খপ্পরে পড়বে। তা হতে দেয়া যায় না। আলেম সমাজ ও ইসলামী নেতৃবৃন্দকে এচক্রান্ত প্রতিহত করতে হবে।

মোড়ক উন্মোচিত বইয়ের লেখক নুরুল ইসলাম খলিফা বলেন, রোজ কিয়ামতে নাজাতের উসিলা হিসেবে এই বইটি যাতে গণ্য হয় সে উদ্দেশ্যেই লেখা।

Facebook Comments