Sunday, January 16, 2022
Home > ছড়া/কবিতা > বিষাদ পল্লব ।। মোঃ আসাদ হাসান

বিষাদ পল্লব ।। মোঃ আসাদ হাসান

Spread the love

বিষাদের সুর বাজাতেই থাকে এক বোহেমিয়ান বেহালা। বাতাসে ছড়িয়ে যায় তার উজ্জ্বলতম সুর, সাথে থাকে কেরোসিনে ডোবা প্রাগৈতিহাসিক কোনো মেহগনি কাঠের ঘ্রাণ। এরকম এক পোষা মেহগনি ছিলো আমার। তার বাদামী বীজ ছিলো আমার বসন্তের উড়োজাহাজ। স্মৃতিসরণী হাতড়াই, শান্তনু আসে উড়োজাহাজে চেপে,প্রাকশৈশব বন্ধু। আমার নয়, আমাদের ছিলো ওই মেহগনি। বালির মিনার ছিলো আমাদের প্রিয় ভাস্কর্য, প্রিয় প্রাঙ্গণ ছিলো বিকালবেলার ঘেসো মাঠ। প্রিয় উৎসব কী ছিলো? বিষ্যুদবারের অর্ধেক ক্লাস নাকি শুক্রবারের বাংলা ছবি? প্রিয়তম ঘৃণা ছিলো বসে থাকা চুপচাপ হয়ে। পৌনে শতবর্ষী মন্দিরে করতাম গুপ্তধনের খোঁজ।আহা! আমাদের প্রিয় মুহূর্ত। বেহালার সুর তীব্রতর হয়। দ্রুতবেগে ছুটে যায় সিন্যাপ্সের দল,পিছে পিছে যাই আমরা দু’জন। স্মৃতিসরণীর পথে পথে ভেসে আসে অনেকে। প্রিয় গান, প্রিয় ফুল, প্রিয় আক্ষেপ, প্রিয় বালিকা ,প্রিয় উদ্যান , প্রিয় নির্বাসন, প্রিয় অভিমান, প্রিয় কবিতা, প্রিয় উল্লাস, প্রিয় ফলাফল, প্রিয় ক্লাসরুম, প্রিয় জানালা, প্রিয় শিক্ষক…

হুট করে চুপ হলো অংশুমান, আঙুলেরা বিশ্রাম নিতে থামিয়ে দিলো বেহালার সুর। সাহেবী কেতায় উড়োজাহাজ নিয়ে চলে গেলো শান্তনু। বিমুগ্ধ বেদনা নিয়ে ইউ টার্ন দিই। ঘরে ফিরে দেখি আমার জানালায় বসে আছে একজন প্রজাপতি। ঠোঁটে তার জ্বলজ্বল করছে এক উদ্বাস্তু মেহগনি বীজ।

Facebook Comments