Sunday, January 16, 2022
Home > বই আলোচনা > পাপালাপ ~ আবদুল্লাহ কাফি

পাপালাপ ~ আবদুল্লাহ কাফি

Spread the love
বই – পাপ
লেখক – সাব্বির জাদিদ
ধরণ – উপন্যাস
প্রচ্ছদ – ধ্রুব এষ
প্রকাশনী – ঐতিহ্য
দাম – ২৫০ টাকা
পৃষ্ঠা – ১৪২
 
২৫ ফেব্রুয়ারি৷ ‘১৮’র বইমেলায় আমার প্রথমদিন৷ ‘ঐতিহ্যে’র সামনে গিয়ে ফোন দিলাম সাব্বির জাদিদ ভাইকে৷ তিনি মেলায় নেই৷ গতকাল ঢাকা ছেড়েছেন৷ কথা বলে জানলাম৷ ‘পাপ’ কিনলাম না৷ বর্তমানে অটোগ্রাফ ছাড়া মানুষ বই কিনে না! প্রমাণ করলাম৷
‘পাপ’ সাব্বির জাদিদের প্রথম উপন্যাস৷ প্রথমেই তিনি সোনা ফলিয়েছেন৷ মূলত গল্প লেখেন৷ গল্পে গল্পে মানুষের জীবন পড়েন, পড়ান৷ সমাজ আঁকেন, আঁকান৷ রাষ্ট্র গড়েন, গড়ান৷ ‘১৭’র মেলায় প্রকাশিত তাঁর গল্পগ্রন্থ ‘একটি শোক সংবাদ’ সেই প্রমাণই বহন করেছে৷
উলঙ্গ শিপ্রা৷ উলঙ্গ আবির৷ কিছুই পরনে নেই তাদের৷ একটা সুতোও না৷ শিপ্রা ঘুমোচ্ছে৷ আবির অবাক হয়ে ভাবছে, তারা এখানে কেনো? তারা তো ট্রেনে ছিলো৷ উলঙ্গ কেনো? শিপ্রার পরনে তো বিয়ের বেনারসি ছিলো৷ আবির ভাবছে – সূর্যটা সবুজ কেনো? একটা সাপ আবিরের দিকে চেয়ে আছে৷ সাপটা তাকে দংশন করছে না কেনো? সাপের চোখটা অমন মানুষের মতো কেনো? এটা কি স্বপ্ন? স্বপ্ন তো এতো গোছানো হয় না৷ তবে এটা কোন জগৎ?
অনেকগুলো সিংহ এক সাথে গড়াগড়ি করছে৷ আবিররা পছন্দ মতো সিংহের কানে ধরে পিঠে চড়ছে আর সিংহ তাদের বয়ে চলছে৷ তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিচ্ছে৷ এসব পড়তে পড়তে মনে হয়, আমিই আবির৷ সিংহের পিঠে বসে আছি৷ সিংহ জঙ্গলের ভিতর লাফিয়ে লাফিয়ে চলছে৷ উড়ে উড়ে ছুটছে৷
কিছু মুভি থাকে৷ একেবারে মন ছুঁয়ে যায়৷ মনে হয়, আমিই নায়ক৷ আমাদের ভেতরটা ঢুকে যায় মুভিতে৷ বাহির হয়ে যায় পুতুল৷ নায়ক কাঁদলে আমরা কাঁদি, তার সাথে হাসি৷ ‘পাপ’ তেমনই৷ আপনাকে পুতুল বানিয়ে ফেলবে৷ আপনি পিংক কালারের হরিণ দেখে চমকে উঠবেন৷ উলঙ্গ শিপ্রাকে দেখে নড়ে বসবেন৷ বন মোরগ দেখে অবাক হবেন৷ ঢুকে যাবেন রূপকথায়৷ সে রূপকথার নাম ‘পাপ’৷ যেমন তার কাহিনী, ঠিক তেমনই বর্ণনা৷ লেখক তার সবটা দিয়ে খেটেছেন, পৃষ্ঠা উল্টালেই বোঝা যায়৷
সাব্বির জাদিদ সব সময়ই অন্যরকম, অনন্য৷ সময়ের স্রোতে ভেসে যাননি৷ তিনি লেখায় এনেছেন ভিন্নতা৷তার গল্প বলার ঢং সম্পূর্ণ আলাদা৷ বজায় রেখেছেন স্বকীয়তা৷ লেখার ধরণ কপি করা, গল্প বলার প্লট চুরি করার যে স্রোত বইছে, সাব্বির জাদিদ সেখানে উল্টো স্রোত৷ একাই দাঁড়িয়েছেন এই স্রোতের বিপক্ষে৷ সময়ের বিপক্ষে৷ তার প্রমাণ পেয়েছি ‘একটি শোক সংবাদে’৷ তাঁর এই উল্টো চলাটা পরিপক্ক হয়েছে পাপে৷
সাব্বির জাদিদ সব সময়ই চান, গল্পে গল্পে পাঠককে একটা ম্যাসেজ দিতে৷ দিয়েও দেন৷ খুব সহজে, চুপিসারে আপনার মাথায় ঢুকে যাবে একটা ম্যাসেজ৷ প্রতিটা গল্পের পরই আমি একটা ম্যাসেজ পাই৷ সব পাঠকই পান৷ সে ম্যাসেজ আমায় ভাবায়৷ আমি ভাবি৷ ‘পাপে’-ও তিনি ম্যাসেজ দিতে চেয়েছেন৷ এবং সফলও হয়েছেন৷ সে ম্যাসেজ মনুষত্বের৷ সে ম্যাসেজ সাম্যের৷
হালের গল্পকারদের মাঝে সাব্বির আমার প্রিয়৷ তাঁর গল্পের প্লট, গল্পের বুনন মন কাড়ে৷ নেশা ধরিয়ে দেয়৷ তাঁর গল্প বলার ঢং অবাক করে৷ সাব্বির একদিন আকাশ ছুঁবে৷ গল্পে গল্পে মানুষের হৃদয় ছুঁবে৷ এ স্বপ্নই দেখি৷
Facebook Comments