রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২
Home > Uncategorized > চিঠি “প্রিয়তমা” তালহা জারীর

চিঠি “প্রিয়তমা” তালহা জারীর

Spread the love
পত্রের প্রারম্ভে আমার অসীম ভালবাসায় সিক্ত হয়ো। কেমন আছো তুমি? ভালো আছো অবশ্যই। কারণ তুমি যে আমায় ছাড়া ভালোই থাকো। সেটা আমি জানি। নাহয় আমায় একা রেখে তুমি চলে যেতেনা অতো দূরে।
 
আমাকে হয়ত ভুলে গেছো এত্তদিনে। আমি কিন্তু তোমায় এখনও ভুলিনি। হৃদয়ের গহিনে এখনও তোমায় স্বযত্নে লালন করি। লালন করবো জীবনের অন্তিম মুহূর্তে গিয়েও।
 
আজকে যখন আকাশ কালো করে বাতাস নেমেছিলো। তখন স্নিগ্ধ বাতাসে তোমার ছোঁয়া অনুভব করছিলাম।এরপরে যখন হালকা বৃষ্টি নেমেছিলো। তখন তোমায় ছাড়া থাকতে আমার ভীষণ কষ্ট হচ্ছিলো। ছটফট করছিলাম। অপেক্ষা করছিলাম। কখন তুমি এসে আমায় জড়িয়ে ধরে বলবে, বাবু! আকাশটা দেখো! ওদের আজ খুব কান্না পেয়েছে। কাঁদছে অঝোরে।
 
কিন্তু তুমি তো আজ নেই! কে আমায় অতো সুন্দর করে আকাশ দেখাবে! ওদের কষ্ট বুঝাবে!
 
তুমিহীন শূন্যতায় আজ আমি নির্বাক হয়ে আছি। চোখের অশ্রুকণা খড়কুটের ন্যায় ভেসে যাচ্ছে বৃষ্টির জলের সাথে। এভাবে ভেসে যাবে পুরোটা জীবনভর। কিন্তু আমি যে আর পারছিনা! তোমার ছোঁয়া পেতে খুউব ইচ্ছে করে ক্ষণে ক্ষণে।
 
আজকের চাঁদটাও বেশ সুন্দর। একেবারে বড়সড়। পূর্ণিমা এসে গেছে যে! তাই অতো বড়। তোমায় নিয়ে চাঁদ দেখতেও খুউব ইচ্ছে করছিলো। চাঁদের জোছনায় তোমাকে দারুণ লাগতো। মন্ত্রমুগ্ধের ন্যায় চেয়ে থাকতাম তোমার মুখপানে। একমুঠো জোছনা এনে তোমায় মেখে দিতাম।
 
তোমায় কাছে পাবো আর কোনো দিন? পাবোনা জানি। তারপরেও তোমার শহরে আমার অবাধ বিচরণ চলবে। তোমায় খুঁজে বেড়াবো আজীবন। সম্ভব হলে আমায় দেখা দিও তুমি। অসম্ভব ভালোবাসবো।
 
ইতি
তোমার প্রিয়তম
Facebook Comments